Khabar Aajkal

আমেরিকার আন্তর্জাতিক বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রবীণ পদে(সাম্মানিক) নিযুক্ত হলেন রায়গঞ্জ ইউনিভার্সিটির কম্পিউটার এন্ড ইনফরমেশন সায়েন্স বিভাগের অধ্যাপক ড: প্রানতোষ কুমার পাল।
Spread the love

আমেরিকার আন্তর্জাতিক বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রবীণ পদে(সাম্মানিক) নিযুক্ত হলেন রায়গঞ্জ ইউনিভার্সিটির কম্পিউটার এন্ড ইনফরমেশন সায়েন্স বিভাগের অধ্যাপক ড: প্রানতোষ কুমার পাল।

সুদূর আমেরিকার ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি থেকে উচ্চ পদে সম্মানিত হলেন রায়গঞ্জ ইউনিভার্সিটির কম্পিউটার অ্যান্ড ইনফরমেশন সায়েন্স বিভাগের অধ্যাপক ডক্টর  প্রানতোষ কুমার পাল। ডক্টর পাল এর বাড়ি দক্ষিণ দিনাজপুর এর গঙ্গারামপুরে। আমেরিকার লুইসিয়ানায় প্রতিষ্ঠিত লোগোস ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি থেকে চলতি বছরের লকডাউন পিরিয়ডের মধ্যে প্রথমে অনারিস কওসা ডক্টরাল ডিগ্রী (DSc/DLitt.)এর প্রস্তাব আসে।আন্তর্জাতিক এই ইউনিভার্সিটি টি থেকে এই সম্মানের প্রস্তাব পাবার পরে ডক্টর পাল ভীষন উচ্ছসিত হন, কারণ ওই ইউনিভার্সিটির গণ্ডি শুধুমাত্র আমেরিকাতে নয় অন্যান্য মহাদেশ এবং পৃথিবীর বিভিন্ন দেশে। যদিও অধ্যাপক প্রানতোষ কুমার পাল এই প্রস্তাবকে সম্মান জানিয়ে বিশ্ববিদ্যালয়কে জানান যে তার বরাবর ই গবেষণামূলক থিসিস এবং রিসার্চের মাধ্যমে উচ্চতর ডিএসসি ডিগ্রী অর্জনের ইচ্ছা রয়েছে,অনারিস কওসা ডক্টরাল ডিগ্রির পরিবর্তে। বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষের তরফে জানানো হয় যে লোগোস ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির অর্জিত সর্বোচ্চ ডিগ্রী হল পিএইচডি এবং আমেরিকার অন্যান্য ইউনিভার্সিটির মতোএখনো পর্যন্ত কোন পোস্টডক্টরাল ডিগ্রির সুযোগ এই বিশ্ববিদ্যালয় নেই, তথাপি বিকল্প হিসাবে আরেকটি উচ্চ পদের সন্মান আসে অধ্যাপক ডক্টর প্রানতোষ কুমার পাল এর কাছে সেটি হল অনারারি প্রফেসর । তিনি সুযোগটি গ্রহণ করেন এবং বিশ্ববিদ্যালয়ের পক্ষ থেকে তাকে এই সাম্মানিক পদের জন্য সংশাপত্র এবং ডিপ্লোমার মাধ্যমে সম্মানিত করা হয়। প্রসঙ্গত প্রায় 15 বছর আগে প্রতিষ্ঠিত (2006সালে স্থাপিত) লোগোস ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির ক্যাম্পাস পৃথিবীর বিভিন্ন মহাদেশের বেশকিছু দেশে অবস্থিত। উত্তর আমেরিকা মহাদেশের ইউ এস এ তে, দক্ষিণ আমেরিকার ব্রাজিলে, ইউরোপ মহাদেশের সার্বিয়া তে অবস্থিত। এছাড়া পৃথিবীর প্রায় 50 টির বেশি ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির অনলাইন এবং ডিসটেন্স লার্নিং প্রোগ্রাম জনপ্রিয়। প্রসঙ্গত ইউনিভার্সিটিটি পৃথিবীর বিভিন্ন অনুমোদনকারী সংস্থা দ্বারা অনুমোদিত। যেমন ফ্লোরিডার ডিপার্টমেন্ট অফ এডুকেশন, ইউনাইটেড স্টেটস; অ্যাক্রিডিটেশন সার্ভিস ফর ইন্টারন্যাশনাল স্কুল কলেজেস এন্ড ইউনিভার্সিটিস,  ইউনাইটেড কিংডম; ইন্টারন্যাশনাল নেটওয়ার্ক ফর কোয়ালিটি অ্যাসুরেন্স এজেন্সি ইন হায়ার এডুকেশন, স্পেন; ইউনাইটেড নেশন একাডেমিক ইম্প্যাক্ট,ইউনাইটেড স্টেটস; বোর্ড অফ কোয়ালিটি স্ট্যান্ডার্ড, আফ্রিকা ; সর্বোপরি ইউনেস্কো দ্বারা চালিত ইন্টারন্যাশনাল অ্যাসোসিয়েশন অফ ইউনিভার্সিটিস, প্যারিস। 

ডক্টর পালের অবিচ্ছিন্ন গবেষণা এবং ইনফর্মেশন সায়েন্স এর অনবদ্য অবদানের জন্য তার এই সম্মান। প্রসঙ্গত ডক্টর পাল রায়গঞ্জ ইউনিভার্সিটিতে অ্যাসিস্ট্যান্ট প্রফেসর পদে কর্মরত হলেও আমেরিকার ইউনিভার্সিটির তরফে তাকে সরাসরি অনারারি প্রফেসর (অনারারি অ্যাসিস্ট্যান্ট প্রফেসর এর পরিবর্তে) পদে সম্মানিত করা হয়। ডক্টর পালের শিক্ষা এবং গবেষণা সংক্রান্ত কাজ ব্যাপক ভাবে বিস্তৃত। আই আই ই এস টি শিবপুর এর পিএইচডি ডিগ্রীধারী। ডক্টর পাল বিভিন্ন শাখার ডিগ্রিধারী, যেমন সায়েন্স, আর্টস, ম্যানেজমেন্ট, টেকনোলজি ( সবগুলোর সাথেই ইনফর্মেশন সায়েন্স প্রত্যক্ষ বা পরোক্ষ ভাবে যুক্ত)। তার হাতে রয়েছে প্রায় 25 টির মত রচিত এবং সম্পাদিত পুস্তক এবং 200 এর বেশি গবেষণামূলক পেপার এবং আর্টিকেল। তার বুক চ্যাপ্টার এর সংখ্যা প্রায় 100 এর মত। এছাড়া ডক্টর পাল প্রায় 15 টির বেশি লার্নড একাডেমিক সোসাইটির ফেলো এবং মেম্বার হিসাবে নিযুক্ত। এখানেই নয় ডক্টর পাল প্রায় 50 টি দেশের 200 টি র বেশি ইন্টারন্যাশনাল কনফারেন্সের সাথে যুক্ত থাকার রেকর্ড আছে। ডক্টর পাল বিভিন্ন জাতীয় এবং আন্তর্জাতিক জার্নাল এবং বুক সিরিজের চিফ এডিটর পদেও যুক্ত। তার এই অবদানের জন্য লোগোস ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি তাকে অনারারি অ্যাসিস্ট্যান্ট প্রফেসর এর পরিবর্তে সরাসরি অনারারি প্রফেসর পদের সম্মান দিয়েছে। প্রসঙ্গত এ এস     আই সি (ইউ .কে) কর্তৃক অনুমোদিত লোগোস ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি অনারারি প্রফেসর পদের জন্য যত একাডেমিক অবদান দরকার তার থেকে বেশি রয়েছে বলেই সরাসরি এই সম্মান। গত 15 বছরে পৃথিবীর প্রায় আশি জন অ্যাক্যাডেমিশিয়ান কে ইউনিভার্সিটি এই সম্মান দিয়েছে। তার এই সাফল্যে বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য প্রফেসর অনিল ভুইমালি, রেজিস্ট্রার ড: দুর্লভ সরকার, সাইন্স এন্ড ম্যানেজমেন্টের ডিন প্রফেসর কে এস তিওয়ারি খুশি ব্যক্ত করেছেন এবং আরো মঙ্গল কামনা করেছেন । এদিন লোগোস ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি থেকে পাওয়া ফলক গুলোকে রায়গঞ্জ ইউনিভারসিটিতে তুলে ধরেন ডক্টর পাল। উপস্থিত ছিলেন উপাচার্য সহ একাধিক  আধিকারিক। তার সাফল্যে খুশি তার পরিবারের সকলে, তার মেয়ে, তার বিভাগের সহকর্মী, তার ছাত্র ছাত্রী এবং অন্যান্য গবেষকেরা । এছাড়া বর্তমানে তিনি এনভায়রনমেন্টাল ইনফর্মেশন সায়েন্স নিয়ে পোস্ট ডক্টরাল রিসার্চ সার্টিফিকেট প্রোগ্রাম এ ম্যাঙ্গালোরের শ্রীনিবাস ইউনিভার্সিটির সাথে যুক্ত। এই গবেষণা প্রোগ্রামের সুপারভাইজার ব্যাঙ্গালোরের শ্রীনিবাস ইউনিভার্সিটির উপাচার্য অধ্যাপক পি এস আইথাল এবং রায়গঞ্জ ইউনিভার্সিটির উপাচার্য অধ্যাপক অনিল ভুইমালি, এবং এই প্রকল্পটি ডিসেম্বর মাসেই শেষ হবার কথা। আগামীতে আরো গবেষণামূলক কাজ এবং রায়গঞ্জ ইউনিভার্সিটির তরফে স্কিলবেসড  বিভিন্ন শাখার (ইন্টারডিসসিপ্লিনারী)  স্টুডেন্টদের জন্য প্রোগ্রাম শুরু করার ইচ্ছা রয়েছে বলে জানান ডক্টর পাল।


Spread the love

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *