Khabar Aajkal

শ্মশানে সক্রিয় দালাল চক্র।
Spread the love

শ্মশানে সক্রিয় দালাল চক্র।

করোনা আক্রান্তদের মৃতদেহ সৎকার নিয়ে শ্মশানে সক্রিয় দালাল চক্র। সোমবার রাতে ঘটনাটি ঘটেছে বর্ধমানের নির্মল ঝিল শশ্মানে।দেহ সৎকার নিয়ে উৎকন্ঠায় থাকা মৃতের পরিবারের সদস্যদের বোকা বানিয়ে মোটা টাকা আদায় করার অভিযোগ তাদের বিরুদ্ধে। সেই দালাল চক্রের এক পাণ্ডাকে হাতেনাতে পাকড়াও করে গণধোলাই দিল আমজনতা। অন্যদিকে খোঁজ শুরু হয়েছে ওই দালাল চক্রের সঙ্গে জড়িত অন্যান্যদের।

যখন প্রতিনিয়ত বাড়ছে করোনা আক্রান্তদের সংখ্যা, তেমনি বাড়ছে মৃতদের সংখ্যাও। এইরকম অবস্থায় মৃতদেহ সৎকার নিয়ে ব্যবসা একদল কুচক্রী ব্যবসায়ীর।
স্থানীয় বাসিন্দাদের অভিযোগ, করোনায় আক্রান্ত হয়ে মৃত্যু হওয়া ব্যক্তির পরিবারের কাছ থেকে মোটা অঙ্কের টাকা নেয় অসাধু চক্রের সদস্যরা। পরে রাতে তারা বর্ধমানের নির্মল ঝিল শ্বশানে দেহ দাহ করতে নিয়ে যায়। স্বাস্থ্য দপ্তরের নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে কোভিড আক্রান্ত হয়ে মৃত ব্যক্তির পরিবারের কয়েকজন সদস্যও দালালদের হাত ধরে শ্মশানে পৌঁছে রীতি মেনে দেহ সৎকার করতে। করোনা বিধিকে বুড়ো আঙুল দেখিয়ে সৎকার পর্ব চলাকালীন তাদের হাতে নাতে ধরেন সাধারণ এলাকাবাসী। এরপরই শুরু হয় গণধোলাই।

যদিও, এই খবর শোনার পরই, ঘটনাস্থলে উপস্থিত হন বর্ধমান থানার আইসি সহ বিশাল পুলিশ বাহিনী।বর্ধমান পুরসভার আধিকারিক অমিত গুহ বলেন, ‘ঘটনার কথা জানার পরেই পুরসভার তরফে তড়িঘড়ি ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে। সন্ধ্যা ৬টা থেকে সকাল ৬টা পর্যন্ত শ্মশান চত্ত্বরে পুলিশ ক্যাম্প করার জন্য জেলার পুলিশ সুপারকে চিঠি দেওয়া হয়েছে। এছাড়াও বেসরকারি নাসিংহোমে কেউ করোনা আক্রান্ত হয়ে মারা গেলে সেই সংক্রান্ত তথ্য পুরসভাকে যাতে জানানো হয় তার জন্য জেলার মুখ্য স্বাস্থ্য আধিকারিককেও চিঠি পাঠানো হয়েছে।’


Spread the love
News cordinator and Advisor at Khabar Aajkal Siliguri

Related Articles

Like Us on Facebook, It's Free 😉