Khabar Aajkal

১০০ তেও অপরাজিত।
Spread the love

১০০ তেও অপরাজিত।

আজ মহারাজার জন্ম শতবর্ষ। আজকের দিনেই ১৯২১ সালে এই কিংবদন্তির জন্ম। অন্যতম সেরা শিশুসাহিত্যের লেখক সুকুমার রায় ও সুপ্রভা দেবীর এই পুত্র বদলে দিয়েছেন বাংলা তথা ভারতীয় সিনেমার মানচিত্র। অত্যন্ত অল্প বয়সে বাবাকে হারান তিনি। পঠন-পাঠনে আজীবনই ছিল প্রবল আগ্রহ। বিভিন্ন বিষয়ে ছিল তার অগাধ জ্ঞান। প্রেসিডেন্সি ও পরে বিশ্বভারতীতে পঠনপাঠন শেষ করেন। তাঁর কর্মজীবন শুরু ইলাস্ট্রেশন থেকে।

এই মানুষটির ব্যক্তিত্বের আলোয় আলোকিত করতেন তাঁর পরিবেষ্টিত মন্ডলীকে। তার কলমে সৃষ্টি হয়েছে বাংলা সাহিত্যে জগতের একগুচ্ছ নক্ষত্র। ফেলুদার গল্পে আজও বাঙালি খুজে পায় তাদের প্রিয় মানিককে। প্রোফেসর শঙ্কুই হোক বা তাড়িনী খুড়ো এই চরিত্রগুলো আজও ৮ থেকে ৮০ সবারই বিচরন ক্ষেত্র।

যদিও, চিত্র পরিচালক হিসেবে তাঁর খ্যাতি জগৎ জোড়া। বিভূতিভূষণ বন্দ্যোপাধ্যায় পথের পাঁচালীতে গ্ৰাম্য বাংলার যে ছবি তুলে ধরেছিলেন তাকেই হুবহু দর্শকদের সামনে তুলে ধরেছিলেন তিনি। ‘নায়ক’, ‘অপু ট্রিলজি’, ‘দেবী’,’হিরক রাজার দেশে’,’কাঞ্চনজঙ্ঘা’, ‘চারুলতা’ -র মতো অসামান্য সিনেমা উপহার দিয়েছেন বিশ্ব সিনেমা প্রেমীদের। তাঁর সিনেমা ছিল সময়ের থেকে বহু অগ্ৰগামী, একথা তিনি নিজেই স্বীকার করেন বহু সাক্ষাৎকারে।

তার ঝুলিতে ছিল বিভিন্ন পুরস্কার কিন্তু এগুলোর মধ্যে সবচেয়ে উল্লেখযোগ্য হল honorary Oscar award for Lifetime Achievement.

১৯৯২ সালে তিনি শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন তিনি। যদিও, আজ ও আমাদের মাঝে স্বমহিমায় বেচে রয়েছেন তিনি। কারণ, মাণিকের জন্ম আছে মৃত্যু নয়, মাণিক অবিনশ্বর। মহারাজার জন্মদিনে তাকে শতকোটি প্রণাম।


Spread the love
News cordinator and Advisor at Khabar Aajkal Siliguri

Related Articles

Like Us on Facebook, It's Free 😉